নুসরাতকে নিয়ে মুখ খুললেন যশ

অনেকদিন ধরেই গুঞ্জন চলছে সহ অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে নুসরাত জাহানের সম্পর্ক নিয়ে। বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন যশ। এ নিয়েও বেশ আলোচনায় টলিউড এই অভিনেতা। 

বিজেপিতে যোগদানের পরেই সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে পড়েন অভিনেতা যশ। নুসরাত এবং তার সম্পর্ককে তুলনা করা হল বলিউডের এই হেভিওয়েট দম্পতির সঙ্গে। কারণ ইদানীংকালে অক্ষয় কুমার পরিচিত বিজেপি ঘনিষ্ঠ হিসেবে। অন্যদিকে, স্ত্রী টুইঙ্কল খন্না বিজেপিকে কটাক্ষ করে তার মতামত জানান।

ঠিক এমনই ঘটেছে যশ-নুসরাতের ক্ষেত্রেও। বিজেপিতে যশের যোগদানের সময়ও দলের রাজ্য সভাপতি দীলিপ ঘোষকে ভর্ৎসনা করে টুইট করেছিলেন নুসরাত।

যশের বিরোধী শিবিরে নাম লেখানো নিয়ে যদিও এখনও পর্যন্ত কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি নুসরাতের পক্ষ থেকে। তবে যশকে এ নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বললেন, ‘একই পরিবারের সদস্যরা কি রাজনীতি বা অন্য কোনও বিষয়ে ভিন্ন মত পোষণ করতে পারেন না?’ যশ এই প্রসঙ্গে বুঝিয়ে দেন, রাজনীতি এবং হৃদয় একই সরলরেখা ধরে হাঁটে না।

গত বুধবার ভারতীয় জনতা পার্টির পতাকা হাতে তুলে নেওয়ার পর এ কথা পরিষ্কার করে দিয়েছিলেন যশ দাশগুপ্ত। তিনি বলেছিলেন নুসরাতের সঙ্গে তাঁর ‘বন্ধুত্ব’ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সূত্রে। দু’জনের ভিন্ন দুই দলে থাকাটা তাতে কোনও রকম প্রভাব ফেলবে না। তারা একসঙ্গে ছবিও করবেন। একই প্রসঙ্গে যশ টেনে এনেছিলেন আরও এক বন্ধু-নায়িকা এবং তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তীর কথাও।

তা হলে কি অক্ষয়-টুইঙ্কলের মতো ভিন্ন মতাদর্শ নিয়েই শান্তিপূর্ণ সহবাসে থাকবেন যশ-নুসরাত? যশের স্পষ্ট উত্তর, ‘এ ক্ষেত্রে সে কথা বলা ঠিক হবে না। অক্ষয় কুমার এবং টুইঙ্কল খন্না বিবাহিত। আমি এবং নুসরাত তা নই।’

প্রসঙ্গত, স্বামী নিখিল জৈনের সঙ্গে নুসরাতের নাকি দূরত্ব বেড়েছে। এই মুহূর্তে অভিনেত্রী যে বালিগঞ্জে বাবা-মায়ের বাড়িতে এসে থাকছেন সেকথা নিজেই স্বীকার করেছিলেন তিনি। তবে যশের সঙ্গে সম্পর্কে কথা স্পষ্টত অস্বীকারও করেন সাংসদ অভিনেত্রী।

সূত্র: আনন্দবাজার

মন্তব্য এর উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম