দেড় মাসেও সংস্কার হয়নি বিপ্লবী বাঘা যতীনের ভাস্কর্য

কুষ্টিয়ার কুমারখালীর কয়া ইউনিয়নে কয়া মহাবিদ্যালয়ের সামনে নির্মিত ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অগ্রনায়ক বিপ্লবী বাঘা যতীনের ভাস্কর্য দুর্বৃত্তদের দ্বারা ভাংচুরের ১ মাস ১২ দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত সংস্কার করা হয়নি।

কয়া মহাবিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট নিজামুল হক চুন্নু জানান, ভাস্কর্য সংস্কারের বিষয়ে কুমারখালী থানার ওসি মো. মজিবুর রহমানের সঙ্গে আলাপ করা হলে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত এবং আদালতের অনুমতি ব্যতীত ভাস্কর্য সংস্কার করা যাবে না বলে জানিয়েছেন। যে কারণে এখনও সেটি সংস্কার করা সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে কুমারখালী থানার ওসি মো. মজিবুর রহমান জানান, ভাস্কর্য ভাংচুরের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

বর্তমানে তারা আটক রয়েছে। মামলা চলমান থাকায় আদালতের অনুমতিসাপেক্ষে ভাস্কর্য সংস্কার করতে হবে।

কলেজ কর্তৃপক্ষ সংস্কারের জন্য মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বরাবর দরখাস্ত দিলে আমরা আদালতের অনুমতি নেয়ার চেষ্টা করব।

কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজিবুল ইসলাম খান জানান, কলেজ কর্তৃপক্ষ ভাস্কর্যটি সংস্কারের জন্য থানায় আবেদন করলে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালতের অনুমতিসাপেক্ষে উপজেলা প্রশাসনের অর্থায়নে ভাস্কর্যটি সংস্কার করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৭ ডিসেম্বর রাত সাড়ে ১২টার দিকে দুর্বৃত্তরা বিপ্লবী বীর বাঘা যতীনের ভাস্কর্যটি ভাংচুর করে।

পরে ১৯ ডিসেম্বর ভাস্কর্য ভাঙ্গার মূল পরিকল্পনাকারী কয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতিসহ তিনজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

মন্তব্য এর উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম