ক্রিকেট শিবিরে করোনার হানা

52

মহামারি করোনা ভাইরাসের তাণ্ডব শেষে মাঠে ফেরার জন্য মরিয়া ইংল্যান্ড এবং পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। তবে ইংল্যান্ডের উদ্দেশ্যে উড়াল দেওয়ার আগে পাকিস্তান ক্রিকেট শিবিরে করোনার তুমুল হানা। সোমবার (২২ জুন) তিন ক্রিকেটারের পর মঙ্গলবার (২৩ জুন) আরও সাতজনের শরীরে করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে।

জানা গেছে, সোমবার হায়দার আলি, হারিস রাউফ এবং শাদাব খানের পর মঙ্গলবার করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে ফাখর জামান, ইমরান খান, কাশিফ ভাট্টি, মোহম্মদ হাফিজ, মোহাম্মদ হাসনাইন, মোহাম্মদ রিজওয়ান এবং ওয়াহাব রিয়াজের শরীরে। আক্রান্ত আরও একজন সাপোর্ট স্টাফও।

এ দিকে, আক্রান্ত ১০ জন ক্রিকেটারের সুস্থতার জন্য প্রার্থনা করেছেন পাকিস্তানের সাবেক তারকা অল-রাউন্ডার শাহিদ আফ্রিদি। তিনি নিজেও করোনা আক্রান্ত হয়ে সেলফ-আইসোলেশনে রয়েছেন। আক্রান্ত ১০জন ক্রিকেটারের সুস্থতা কামনা করে আফ্রিদি নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, ‘ফাখর, ইমরান, কাশিফ, হাফিজ, হাসনাইন, রিজওয়ান, ওয়াহাব এবং মালাংয়ের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি। দয়া করে শরীরের যত্ন নাও। সমস্ত পাকিস্তানি ভাই-বোনের কাছে আবেদন ভাইরাসটাকে গুরুত্ব সহকারে গ্রহণ করুন।’

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ১০জন ক্রিকেটার এবং সাপোর্ট স্টাফসহ মোট ১১জনের কারও শরীরেই করোনার কোনো উপসর্গ দেখা দেয়নি। শোয়েব মালিক, ফিজিও ক্লিফ ডেকন এবং কোচ ওয়াকার ইউনিসের শরীরে করোনা পরীক্ষা এখনও হয়নি বলে জানিয়েছে পিসিবি।

আক্রান্ত সব ক্রিকেটার এবং এক সাপোর্ট স্টাফকে তাদের এবং পরিবারের স্বার্থে হোম-আইসোলেশনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বলে বিবৃতিতে জানিয়েছে পিসিবি।

তবে স্কোয়াডের ২৯ জন ক্রিকেটারের মধ্যে ১০ জন ক্রিকেটার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলেও ইংল্যান্ড সফরের বিষয়ে কোনোভাবে পিছিয়ে আসতে রাজি নয় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। ইংল্যান্ড সফরের সমস্ত পরিকল্পনা অপরিবর্তিত রেখে পিসিবি কিছু নির্দেশিকা জারি করেছে –

১. ক্রিকেটার এবং সাপোর্ট স্টাফ যাদের রিপোর্ট নেগেটিভ তারা ২৪ জুন অর্থাৎ বুধবার লাহোরে বায়ো-সিকিউর পরিবেশে একত্রিত হবেন। ২৫ জুন প্রত্যেকের শরীরে দ্বিতীয় দফায় করোনা পরীক্ষা করা হবে।

২. ২৫ জুনের পরীক্ষায় যাদের রিপোর্ট নেগেটিভ আসবে তারা চার্টার্ড বিমানে ম্যানচেস্টারের উদ্দেশ্যে রওনা দেবেন। ইংল্যান্ডে পৌঁছে ইসিবি মেডিক্যাল প্যানেল পুনরায় তাদের শরীরে করোনা পরীক্ষা করবে।

৩. ইসিবি’র পরীক্ষার রিপোর্ট যাদের নেগেটিভ আসবে তারা সে দেশের সরকারি গাইডলাইন মেনে কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন। তবে বায়ো-সিকিউর পরিবেশে তাদের অনুশীলনের অনুমতি থাকবে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY