ইরাক-আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা ট্রাম্পের

অবশেষে মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধবিধ্বস্ত রাষ্ট্র ইরাক ও আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিলেন বিদায়ের অপেক্ষায় থাকা যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পেন্টাগন জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আফগানিস্তান থেকে সেনা কমিয়ে আনবেন। ক্ষমতা ছাড়ার আগে আফগানিস্তান থেকে সৈন্য সংখ্যা ৪ হাজার ৫০০ থেকে ২ হাজার ৫০০ জনে নামিয়ে আনবেন ট্রাম্প।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, আফগানিস্তান ছাড়া এবার ইরাক থেকে সেনা প্রত্যাহার করা হবে জানিয়েছে পেন্টাগন। তারা বলছে, ইরাক থেকে ৫০০ সেনা প্রত্যাহার করা হবে। দেশটিতে এখন ৩ হাজার মার্কিন সেনা রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস মিলার বলেছেন, ১৫ জানুয়ারি নাগাদ আফগানিস্তান থেকে ২ হাজার এবং ইরাক থেকে ৫০০ সেনা প্রত্যাহার করা হবে। ফলে দুটি মার্কিন সেনার সংখ্যা ২ হাজার ৫০০ জন করে হবে।

মিলার আরও বলেন, এই পদক্ষেপে ট্রাম্পের নীতি প্রতিফলিত হয়েছে, যেখানে তিনি ‘আফগানিস্তান এবং ইরাকের যুদ্ধের একটি সফল এবং দায়িত্বশীল সমাপ্তি এবং আমাদের সাহসী সেনাসদস্যদের দেশে ফিরিয়ে আনার’ কথা বলেছেন।

ট্রাম্প আফগানিস্তান থেকে সেনা ফিরিয়ে আনার কথা বললেও সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপারের সঙ্গে এ বিষয়ে বিরোধ তৈরি হয়েছিল। তিনি বলেছিলেন, তালিবান নেতাদের সঙ্গে আফগান সরকারের শান্তি আলোচনার সময় দেশটিতে শান্তি বজায় রাখতে সেখানে মার্কিন সেনা থাকা দরকার।

এর আগে ট্রাম্প বলেছিলেন, তিনি বড়দিনের আগে ‘সব’ সৈন্য দেশে ফিরিয়ে আনতে চান। দীর্ঘদিন ধরেই সেনা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে আসছেন ট্রাম্প। বিভিন্ন দেশে সেনা হস্তক্ষেপ খুব ব্যয়বহুল ও অকার্যকর বলেও সমালোচনা করে আসছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *